অনলাইনে কাজ শুরু করার আগে যে বিষয়গুলো আপনাকে জানতেই হবে

অনলাইনে কাজ করতে গেলে আপনাকে নিচের বিষয়গুলো অবশ্যই মেনে চলতে হবে ।

১। যেকোনো একটি কাজের প্রশিক্ষণ গ্রহণঃ অনলাইনে কাজ করার জন্য আপনার অবশ্যই যেকোনো একটি কাজ জানা থাকতে হবে এবং সে বিষয়ে একটা পরিষ্কার ধারনা থাকতে হবে । আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন, যারা কাজ না শিখে অনলাইনে নেমে পড়েন। পরে কাজ না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরে যান । এর কারন হিসেবে বলা যায়, তারা কাজ শিখেন ঠিকই, কিন্তু প্রোফেশনালি কিভাবে কাজ করতে হবে তা জানেন না, বা অনেকেই আছেন, যারা পূরো কাজ না শিখে শুধু অল্প কিছু টিউটোরিয়াল দেখে কাজে নেমে পড়েন।  এখন আপনি আমাকে প্রশ্ন করতে পারেন –অনলাইনে কাজ করতে হলে কি কি কাজ শিখা লাগে? এর উত্তরে আমি বলবো- অনলাইনে কাজ করার জন্য অনেক কাজই আছে। এর মধ্যে আছে – গ্রাফিক্স, ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, এস ই ও, অ্যান্ড্র্যয়েড আপস বিল্ডিং, ডাটা এন্ট্রি সহ আরো অনেক ধরনে কাজ রয়েছে অনলাইনে । আপনি আপনার নিজের কোয়ালিটি, মনমানসিকতা অনুযায়ী যেকোন একটা কাজ শিখতে পারেন




২। অনলাইনে সময় দিতে হবেঃ অনলাইনে কাজ করার জন্য আপনাকে অনলাইনে আপনার উপস্থিতি বাড়াতে হবে । দিনের প্রায় সব সময় আপনাকে ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত থাকতে হবে । নতুবা এই সেক্টরে আপনি ভালো কিছু করতে পারবেন না । ভাবুন তো, আপনি একটি অফিসে কাজ করলে আপনাকে কেমন টাইম মেন্টেন করতে হবে । হ্যাঁ, অনলাইনে কাজ করতে হলে আপনার অবশ্যই সময়জ্ঞান থাকতে হবে ।  আপনি কাজ করবেন বাসায়, তারপরও আপনাকে কাজের একটা সময় করে নিতে হবে । এবং কাজ শুরু করার পর আপনাকে কাজে অনেক সময় দিতে হবে । বাসায় কাজ করতে হবে বলে আপনি কাজে অবহেলা এমন নয়, অবশ্যই আপনাকে কাজের সময় নির্ধারণ করতে হবে এবং ক্লায়েন্টকে যথা সময়ে কাজ বুঝিয়ে দিতে হবে ।

৩। অনলাইনে আয়ের উৎসগুলো জানাঃ অনেকেই অনলাইনে কাজ করতে এসে হতাশ হয়ে ফিরে যান। এর কারন তারা অনলাইন আয়ের উৎসগুলো জানে না । ফলে পিটিসি সাইটকে তারা অনলাইন ইনকামের উৎস হিসেবে মনে করে থাকে , এবং সেখান থেকে কাংখিত ইনকাম না আসার কারনে হতাশ হয়ে কাজ ছেড়ে দেন । আপনাকে অনলাইন আয়ের উৎস সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা থাকতে । upwork, freelancer, guru.com ইত্যাদি ফ্রিল্যান্সিং সাইট সম্পর্কে আপনার জ্ঞান থাকতে হবে , কিভাবে অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়, কিভাবে অ্যাকাউন্ট ভেরিভাই করতে হয়, ক্লায়েন্টের সাথে কিভাবে যোগাযোগ স্থাপন করতে হয় ইত্যাদি । তাছাড়া ব্লগিং, ইউটিউবিং সহ আরো অনেক উপায় আছে, যেহুলর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করা যায় ।

৪। অনলাইনকে ভালবাসতে হবেঃ এই কথাটা সকল পেশা ক্ষেত্রে মানায় । কারন আপনি যে পেশায় থাকেন না কেন, আপনার কাজকে যদি আপনি উপভোগ না করেন, তাহলে এপনি ঐ কাজে বেশি দূর আগাতে পারবেন না । অনলাইনেও ঠিক তেমন , আপনাকে অনলাইনের কাজ গুলোকে ভালোবাসতে হবে । যদি ভালো না বাসেন তাহলে আপনার এই পেশায় আসার দরকার নেই , কারন কাজ শুরু কিছুদিন পর আপনার বিরক্ত লাগা শুরু করবে, কম্পিউটারের সামনে কিছুক্ষণ বসে থাকলে আপনার ভালো লাগবে না ।

৫। লোকাল কাজ করার অভিজ্ঞতাঃ এটা আপনার অনলাইন ক্যারিয়ারের জন্য অনেক ভালো হবে যে , আপনি যদি লোকাল কাজ করে কিছু অভিজ্ঞতা লাভ করেন, তাহলে আপনি পেশাদারিত্ব সাথে অনলাইনে কাজ করতে পারবেন । ধরুন, আপনি গ্রাফিক্স এর কাজ ভালো পারেন, তাহলে আপনি আপনার এলাকার কোন দোকান বা অফিসে কাজ করেন , দেখেন কিভাবে ক্লায়েন্টকে মেনেজ করতে হয়, কিভাবে ক্লায়েন্ট এর সাথে পেশাদারিত্বের সাথে কথা বলতে হয় । কিছু কাজ হ্যান্ড ওভার করলে বুঝবেন কিভাবে পেশাদারিত্বের সাথে কাজ করতে হয় ।

৬। যারা অনলাইনে কাজ করেন তাদের সাথে যোগাযোগ রাখাঃ অনলাইনে কাজ করে এমন কোনো ব্যক্তির সাথে পরিচিতির মাধ্যমে অনলাইন কাজ বিষয়ক গাইডলাইন নিতে পারেন । এতে আপনার কাজ শুরু করতে সহজ হবে । আপনার যেকোন সমস্যা তার থেকে শেয়ারের মাধ্যমে সমাধান করে নিতে পারেন । এতে আপনার অনেক কাজই সহজ হবে ।



Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *