জেনে নিন কাঁঠালের গুণাগুণ

কাঁঠাল আমাদের অতিপরিচিত একটি গ্রীষ্মকালীন ফল। এটি বাংলাদেশের জাতীয় ফল । এর ইংরেজী নাম হচ্ছে –  jackfruit এবং বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে –  Artocarpus heterophyllus ।  গ্রীষ্মপ্রধান দেশে এই ফলের গাছ জন্মে । কাঁঠাল গাছ দেখতে বৃহদাকার এবং এর গাছে বছরে গড়ে ১০০-২০০ টি ফল জন্মে । বলা হয়ে থাকে – কাঁঠাল গাছের কোন কিছু ফালানোর মত না । কাঁঠালের ফল খাওয়ার সাথে সাথে এর বিচি রান্নার কাজে ব্যবহার করা হয় । এর খোসা/ছোকলা গুরুর খাদ্য হিসেবে ব্যবহার হয় । তাছাড়া কাঁঠালের পাতা ছাগলের খুব প্রিয় খাদ্য ।

 

 

 

রোগ-ব্যাধিতে ব্যবহার

১। কাঁঠাল তরকারীকে এঁচোর বলে।এঁচোড় খেলে খাওয়ার রুচি বাড়ে।

২।পাকা কাঠালের বীজ পুড়িয়ে বা তরকারি করে খেলে পেটের গন্ডগোল সেরে যায়।

৩।যাদের আমাশা বা পাতলা পায়খানা ধাত,তারা বীজ পুড়িয়ে খেলে উপকার হয়।

৪।খুব ক্লান্ত লাগলে দু-চার কোষ কাঁঠাল খেলে ক্লান্ত দূর হয়।

 

কাঁঠালে প্রতি ১০০ গ্রামে আছে

জলীয় অংশ ৮৮.০ ক্যালসিয়াম ২০ মিঃ
মোট খনিজ ১.১ লৌহ ০.৫
আঁশ ০.২ ক্যারোটিন (মাইক্রোগ্রাম) ৪৭০০
খাদ্যশক্তি(কিলোক্যালরি) ৪৮ ভিটামিন বি-১ ০.১১
আমিষ ১.৮ ভিটামিন ০.১৫মিঃ
চর্বি ০.১ ভিটামিন-‘সি’ ২১ মিঃ
শর্করা ৯.৯    

 

Comments

comments

Related posts

Leave a Comment